13.3 C
Los Angeles
শুক্রবার, ডিসেম্বর ৮, ২০২৩

নির্বাচনের মাঠে

চিকিৎসার জন্য সস্ত্রীক সিঙ্গাপুর গেলেন মির্জা আব্বাস

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর...

উন্নয়ন-অর্জন এগিয়ে নিতে শেখ হাসিনার বিকল্প নেই: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন,...

নিপুণ রায়সহ ৫ শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে কেরানীগঞ্জে মামলা

রাজধানীর কেরানীগঞ্জে গতকাল শুক্রবার আওয়ামী লীগের পার্টি অফিস ভাঙচুর...

পুলিশের কর্মকাণ্ড নিয়ে সংসদে যা বললেন রুমিন ফারহানা

জাতীয় সংসদে বিএনপির সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা বলেছেন, এই...

আ.লীগ নেতাদের নামে চুরির মামলা, ওসিকে প্রত্যাহারের দাবি

জাতীয়আ.লীগ নেতাদের নামে চুরির মামলা, ওসিকে প্রত্যাহারের দাবি
খবরটি শেয়ার করুন

চুরির মামলায় আওয়ামী লীগ নেতাদের অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করায় সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থানার ওসি খায়রুল বাশারকে প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী।

রোববার দুপুরে বড়ধুল ইউনিয়নের মেহেরনগর গ্রামে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে এলাকার নারী-পুরুষসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশ নেন।

মানববন্ধন চলাকালে বড়ধুল ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জিন্নাহ মোল্লা, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোহেল মোল্লা, ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোল্লা, সহ-সভাপতি ঠান্ডু মিয়া ও আওয়ামী লীগ নেতা আবু সামা মোল্লা বক্তব্য রাখেন।

এ সময় বক্তারা বলেন, গত ১৯ জুন যমুনা চরের মেহেরনগরে গরু চুরির সময় ফরিদুল ইসলাম ও ফারুক শেখ নামে দুই ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশে দেন এলাকাবাসী। পরে পুলিশ থানায় নিয়ে দেনদরবার শেষে বিশেষ সুবিধা গ্রহণ করে তাদের ছেড়ে দেয়। এ ঘটনার প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী প্রতিবাদী হয়ে ওঠেন।

পরবর্তীতে মেহেরনগর গ্রামের রুপচাঁন মোল্লার দায়ের করা অপর একটি চুরির মামলায় বড়ধুল ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিন্নাহ মোল্লা, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোহেল মোল্লাসহ ১৩ জনকে অভিযুক্ত করে গত ২৭ আগস্ট আদালতে অভিযোগপত্র দায়ের করে থানা পুলিশ।

এ মামলাটি মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক বলে বক্তারা অভিযোগ করেন। এরই প্রতিবাদে বেলকুচি থানার ওসি খায়রুল বাশারকে প্রত্যাহার ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে বেলকুচি থানার ওসি খায়রুল বাশার জানান, গরু চুরি সন্দেহে এলাকাবাসী দুই যুবককে আটক করে পুলিশে দেন। পরে তদন্ত করে দেখা যায় চুরির সঙ্গে তাদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। এজন্য তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর আওয়ামী লীগ নেতা জিন্নাহ মোল্লার সঙ্গে তার চাচাতো ভাইদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তদন্তে এ ঘটনার সঙ্গে তাদের জড়িত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। যে কারণে অভিযোগপত্রে তাদের নাম এসেছে।

Check out our other content

Check out other tags:

Most Popular Articles

x