Facebook
Twitter
WhatsApp

মৃত্যুর আগে স্ট্যাটাসে কি লিখেছিলেন তুনিশা

image_pdfimage_print

শনিবার শুটিং সেটে আত্মহত্যা করেন বলি ও টিভি সিরিয়াল অভিনেত্রী তুনিশা শর্মা।ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, মুম্বাইয়ে সেই সেটের মেকআপ রুমেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। ফ্যান থেকে ঝুলন্ত তুনিশাকে উদ্ধার করে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও শেষ রক্ষা হয়নি।

বেঁচে থাকলে ৪ জানুয়ারি ২১তম জন্মদিন উদযাপন করতেন তুনিশা। কিন্তু ক্রিসমাসের ঠিক আগের দিন থমকে গেল তার জীবন। অথচ মৃত্যুর পাঁচ ঘণ্টা আগেও সোশ্যালে সক্রিয় ছিলেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলের স্টোরিতে মেকআপের সময় করা ভিডিও পোস্ট করেছিলেন তুনিশা। সঙ্গে ইনস্টাগ্রাম পেজে সাইড ফেসের একটি ছবিও শেয়ার করেছিলেন। সেখানে ক্যাপশনে লিখেছিলেন, ‘প্যাশনকে যারা ভালোবাসে তারা যেন কখনো নিজেদের সেই ইচ্ছাকে থামিয়ে না দেয়। তুনিশার মরদেহ উদ্ধারের পরে ইনস্টাগ্রামের ওই স্ট্যাটাস নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা। তাহলে স্ট্যাটাসেই কী কোনো রহস্য লুকিয়ে রয়েছে? প্যাশনকে আঁকড়ে ধরে বেঁচে থাকারই কেন পরামর্শ দিলেন তিনি?

এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই মুম্বাই পুলিশের কাছে তুনিশার প্রেমিক ও সহকর্মী শেজান খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন অভিনেত্রীর মা। অভিযোগের ভিত্তিতে রবিবার সকালে তাকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে।উল্লেখ্য, শিশুশিল্পী হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন তুনিশা। ‘ভারত কা বীর পুত্র: মহারানা প্রতাপ’ সিরিয়াল দিয়ে শুরু। ‘আলিবাবা: দাস্তান-ই-কাবুল’-এ রাজকুমারী মরিয়মের ভূমিকায় অভিনয় করছিলেন তিনি। শুধু টেলিভিশন সিরিয়ালে নয়, ‘ফিতুর’, ‘বার বার দেখো’, ‘কহানি ২’, ‘দুর্গা রানি সিংহ’, ‘দাবাং ৩’-এর মতো সিনেমায়ও তুনিশাকে দেখা গিয়েছিল।

খবরটি শেয়ার করুন

Table of Contents

প্রধান উপদেষ্ঠা : আলহাজ্ব ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ এমপি, সংসদ-সদস্য ঢাকা ১৬,প্রকাশক : মোঃ মাসুদ রানা (জিয়া) ।সম্পাদক : শাহাজাদা শামস ইবনে শফিক।সহকারী সম্পাদক : সৌরভ হাসান সোহাগ খাঁন। 

Subscribe Now

নিউজরুম চিফ এডিটর : মোঃ শরিফুল ইসলাম রবিন।সম্পাদকীয় কার্যালয় : ১২০/এ মতিঝিল বা/এ, ৪থ তলা, সুইট-৪০২, ঢাকা- ১০০০বার্তা কক্ষ : ০১৬৪২০৭৮১৬৪ – বিজ্ঞাপনের জন্য : ০১৬৮৬৫৭১৩৩৭

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by www.channelmuskan.tv © 2022

x