11.6 C
Los Angeles
শুক্রবার, ডিসেম্বর ৮, ২০২৩

নির্বাচনের মাঠে

চিকিৎসার জন্য সস্ত্রীক সিঙ্গাপুর গেলেন মির্জা আব্বাস

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর...

উন্নয়ন-অর্জন এগিয়ে নিতে শেখ হাসিনার বিকল্প নেই: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন,...

নিপুণ রায়সহ ৫ শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে কেরানীগঞ্জে মামলা

রাজধানীর কেরানীগঞ্জে গতকাল শুক্রবার আওয়ামী লীগের পার্টি অফিস ভাঙচুর...

পুলিশের কর্মকাণ্ড নিয়ে সংসদে যা বললেন রুমিন ফারহানা

জাতীয় সংসদে বিএনপির সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা বলেছেন, এই...

সন্তান রেখে উধাও মা-বাবা, অতঃপর..

সারাদেশসন্তান রেখে উধাও মা-বাবা, অতঃপর..
খবরটি শেয়ার করুন

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ডস্থ ‘বাংলাদেশ নবজাতক হাসপাতালে’ বেশি বিল হওয়ায় তা পরিশোধ করতে না পেরে এক মাসের মেয়ে শিশুকে হাসপাতালে ফেলে উধাও হয়ে যান মা-বাবা। পরবর্তীতে বিল পরিশোধ করে ঐ শিশুকে মা-বাবার কোলে ফিরিয়ে দেয় সিদ্ধিরগঞ্জ পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে এই বিল পরিশোধ করেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি গোলাম মোস্তফা। এ সময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সদস্যরা।

এর আগে শনিবার (১২ আগস্ট) এমন ঘটনা ঘটে। এরপর থেকে শিশুটির মা-বাবার কোনো খোঁজ খবর না পেয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পুলিশের শরণাপন্ন হয়।

জানা যায়, শিশুটি নরদিংদী মনাহেরপুরের রজত চন্দ্র এবং সুজাতা দম্পতির মেয়ে।

এ বিষয়ে ওসি গোলাম মাস্তোফা বলেন, এক মাস আগে শিশুটি তাদের গ্রামের বাড়িতে জন্মগ্রহণ করে। এরপর থেকে শিশুটি হার্টের ছিদ্র সমস্যায় ভুগছিল। কোনো উপায় না দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য শিশুটিকে তার মা-বাবা ঢাকায় নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ, মাতুয়াইল মা ও শিশু ইনস্টিটিউটে এনআইসিইউ না পেয়ে সাইনবোর্ডের নবজাতক হাসপাতালে ভর্তি করান।

তিনি আরো বলেন, হাসপাতালে এনআইসিইউ থাকা অবস্থায় শিশুটি সুস্থ হতে থাকেন। এমন প্রেক্ষিতে সব মিলিয়ে হাসপাতালের বিল দু’লাখ টাকার বেশি হলে শিশুটির মা-বাবা টাকা ম্যানেজ করে নিয়ে আসবে বলে উধাও হয়ে যান। এভাবে ৬-৭ দিন চলে যাওয়ার পর শিশুটি মা-বাবা ফেরত না আসলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি থানায় জানায়।

ওসি বলেন, পরবর্তীতে নারায়ণগঞ্জের এসপি গোলাম মোস্তফা রাসেলের নির্দেশে মানবিক দিক বিবেচনা করে আমরা হাসপাতালের বিল পরিশোধ করার উদ্যোগ গ্রহণ করি। অতঃপর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে আমাদের সাধ্যমতো বিল পরিশোধ করে শিশুটিকে মা-বাবার কাছে ফিরিয়ে দেই। বর্তমানে শিশুটি সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছে।

এদিকে সিদ্ধিরগঞ্জ পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে শিশুটির মা-বাবা বলেন, আমাদের আর্থিক অবস্থা খুব খারাপ হওয়ায় আমরা কোনোভাবেই বিল পরিশোধ করতে পারছিলাম। এর মধ্যে দু’দিন আগে শিশুটির নানি মারা যান। কোনো উপায় না পেয়ে আমরা এই কাজ করি।

Check out our other content

Check out other tags:

Most Popular Articles

x