প্রথম দেশ হিসেবে করোনার টিকার অনুমোদন যুক্তরাজ্যে

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ফাইজার ও বায়োএনটেকের করোনাভাইরাসের টিকার অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য। দেশটির মেডিসিন অ্যান্ড হেলথকেয়ার প্রোডাক্টস রেগুলেটরি অথরিটি (এমএইচআরএ) এই অনুমোদন দিয়েছে।

অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিভিন্ন দলকে পৃথক করা হয়েছে। ফাইজার ও বায়োএনটেককে এরই মধ্যে চার কোটি ডোজ ভ্যাকসিনের অর্ডারও দিয়েছে যুক্তরাজ্য। এতে দুই কোটি ব্রিটিশ নাগরিককে এই টিকা দেওয়া সম্ভব হবে বলেও আশা করা হচ্ছে। কয়েক দিনের মধ্যেই প্রথম দফায় এক কোটি টিকার ভ্যাকসিন হাতে পাবে যুক্তরাজ্য সরকার।

বিবিসি জানিয়েছে, স্বাস্থ্যসেবা খাতে নিয়োজিত কর্মীদের প্রথম ধাপে দেওয়া হবে করোনার টিকা। পরের ধাপে ৫০ বছরের বেশি বয়সীদের দেওয়া হবে। প্রথম ডোজ দেওয়ার ২১ দিন পর দ্বিতীয় বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে।

গবেষণা থেকে শুরু করে চূড়ান্ত পর্যায়ে অনুমোদিত উৎপাদন বিবেচনায় ফাইজার ও বায়োএনটেকের এই টিকাটিই পৃথিবীর সবচেয়ে কম সময়ে তৈরি টিকা। মাত্র ১০ মাসের ব্যবধানে কার্যকর রূপ পেয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বহুজাতিক ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানি ফাইজার ও জার্মান জৈবপ্রযুক্তি কোম্পানি বায়োএনটেকের টিকা।

সাধারণত একটি রোগের টিকা বানাতে এক দশকের মতো সময় লেগে যায়।

যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক টুইটে বলেছেন, ‘সাহায্যকারী দল প্রস্তুতিপর্বে রয়েছে। জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা (এনএইচএস) কর্তৃপক্ষ সামনে সপ্তাহের শুরু থেকে টিকা প্রয়োগ শুরু করবে।’

তবে টিকার প্রয়োগ শুরু হওয়ার পরও সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

খবরটি শেয়ার করুন
x