কালিয়ায় ফসলি জমি হুমকির মুখে, বালু-মাটি উত্তলন

কালিয়া প্রতিনিধি : নড়াইরে কালিয়া উপজেলার পহরডাঙ্গা ইউনিয়নের বাগুডাঙ্গা এলাকায় ফসলি জমি থেকে অবৈধভাবে বালু ও মাটি উত্তোলন করা হচ্ছে।

এতে আশপাশের ফসলি জমি ও সড়ক ধসে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ ছাড়া কাছাকাছি থাকা কয়েকটি বসতঘরও হুমকির মধ্যে রয়েছে। স্থানীয় এক ব্যক্তি এর নেপথ্যে রয়েছেন বলে জানা যায়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বাগুডাঙ্গা বড়মাঠ এলাকার চাপাইল টু কালিয়া সড়কের সঙ্গে লাগানো আবাদি জমিতে অগভীর নলকূপের ঘাতক ড্রারেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন : নড়াইলে সরকারি ৫৮ বস্তা চাউল অটক

স্থানীয় ৪-৫ জন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রায় দেড় বছর আগে মাওলানা নুরুজ্জামান ওরফে (নুরু মাওলানা) বাগুডাঙ্গা এলাকার রাস্তার পাশে তাঁর নিজের দুই বিঘা জমি থেকে বালু উত্তোলন শুরু করেন। অগভীর নলকূপের ঘাতক ড্রারেজার দিয়ে ভূগর্ভ থেকে বালু তোলার ফলে পাশের ফসলি জমি ধসে পড়ছে। আশপাশের আরও অনেক আবাদি জমিতে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

বালু উত্তলোনের সময় কথা হয় ড্রেজারের মালিক চাপাইল গ্রামের আব্দুর রহিমের সাথে। তিনি বলেন, নুরু মাওলানা নির্দেশে এখানে বালু ও মাটি তোলা হয়। এবং এলাকার বিভিন্ন স্থানে ৪-৫ টাকা ফিট দরে বালু বিক্রি করা হচ্ছে। স্থানীয় কয়েকজন কৃষক বলেন, জমি থেকে বালু তোলার ফলে আশপাশের ফসলি জমি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

এভাবে বালু তোলা অব্যাহত থাকলে একসময় মাঠের সব ফসলি জমি নষ্ট হয়ে যাবে। এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জহিরুল ইসলাম বলেন, বাগুডাঙ্গা এলাকায় কৃষিজমিতে বালু ওঠানোর ব্যাপারে আমার জানা ছিলোনা।

আমি আপনাদের মাধ্যমে জানতে পেরেছি। আমি অসুস্থ তারপরে ও আমি আবাদি জমি থেকে বালু উত্তলোন বন্ধ করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

আরও পড়ুন : আরও ৮৮ জনের মৃত্যু করোনায়

খবরটি শেয়ার করুন
x